ঢাকা খোলা

রবীন্দ্ৰনাথ একবার ঢাকায় গিয়েছিলেন বিখ্যাত ঐতিহাসিক রমেশচন্দ্র মজুমদারের অতিথি হয়ে। রমেশচন্দ্র একদিন কবিকে ঢাকা শহর দেখাতে নিয়ে যান। সেই সময় ঢাকা শহরের রাস্তা ছিল সরু আর নোংরা। রমেশচন্দ্ৰ শহরের যে অংশে থাকতেন সেটা অবশ্য শহরের নতুন অংশ, নাম-রমনা। তার চারদিকে খোলা সবুজ মাঠ। প্রত্যেক বাড়ির সামনে অনেকটা ফাঁকা জমি। স্বাভাবতই নতুন এবং পুরনোর তফাতটা বড় বেশি চোখে লাগত। রবীন্দ্ৰনাথ ঢাকা শহর দেখতে দেখতে রমেশচন্দ্ররকে বললেন, ‘রমেশ, তোমাদের এলাকার নাম বদলানো উচিত।’

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের রঙ্গ রসিকতা রমেশচন্দ্ৰ শুনে বললেন, ‘কেন, গুরুদেব?’

রবীন্দ্ৰনাথ হেসে বললেন, ‘এই ঢাকা শহরের ঢাকা অংশের নাম সার্থক। এই রমনার চারদিকে খোলা মাঠ, তাই এর নাম হওয়া উচিত–খোলা।’

কবির কথায় রমেশচন্দ্ৰ হেসে ফেললেন।