অক্রূর

অক্রূর–কৃষ্ণের পিতৃব্য। যদুবংশে শ্বফন্ধের ঔরসে কাশীরাজ–কন্যা গাছি, নীর গর্ভে এঁর জন্ম হয়। ইনি কৃষ্ণের পিতৃব্য। উগ্রসেনের এক কন্যাকে ইনি বিবাহ করেন এবং এঁর দুই পুত্ৰ হয়। অক্রূর এক সময়ে কংসের গৃহে ছিলেন। কৃষ্ণ ও বলরামকে হত্যা করার জন্য কংস ধনুযজ্ঞের অনুষ্ঠান করেন। কংস এই যজ্ঞে কৃষ্ণ ও বলরামকে আনবার জন্য বৃন্দাবনে অঙ্কুরকে পাঠান; কিন্তু ইনি কৃষ্ণের কাছে গিয়ে কংসের অত্যাচারের কাহিনী বর্ণনা করে তাঁর প্রকৃত উদ্দেশ্যের ইঙ্গিত দিলেন এবং কংসের অত্যাচার থেকে যাদবদের রক্ষা করার জন্য কৃষ্ণকে অনুরোধ করলেন। পরে কৃষ্ণের হাতে কংসের বিনাশ হয়। কৃষ্ণের শ্ৰী সত্যভামার পিতা সত্ৰাজিতের স্যমন্তক’ নামে মণি ছিল। এই মণির সাহায্যে প্রত্যহ প্রচুর স্বর্ণ উৎপন্ন হত। শতধন্বা নামে এক ব্যক্তি সত্ৰাজিতকে হত্যা করে এই মণি হস্তগত করে। স্যমন্তক মণির জন্য কৃষ্ণ শতধন্বাকে উৎপীড়িত করলে সে গোপনে এই মণি অক্রূরকে দিয়ে পলায়ন করে। অতঃপর কৃষ্ণ শতধন্বাকে বধ করেন। এই মণির গুণে অক্রূর ব্যয়সাধ্য যাগযজ্ঞ অনায়াসে সাধন করতে পারতেন। পাণ্ডবদের সম্বন্ধে ধৃতরাষ্ট্রের যথার্থ মনোভাব জানিবার জন্য কৃষ্ণ অক্রূরকে হস্তিনাপুরে দৌত্যকার্ষে পাঠিয়েছিলেন। যদুবংশ ধ্বংসকালে অক্রূরের জীবনের পরিসমাপ্তি ঘটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *