১৫. সবিনয় নিবেদন

১৫. সবিনয় নিবেদন  পরম শ্রদ্ধেয় শ্ৰীশ্ৰীজীব ন্যায়তীৰ্থ মহাশয় বৃদ্ধ বয়সেও (নব্বই ঊর্ধ্বে) অশেষ ধৈর্য সহকারে এই গ্রন্থের পাণ্ডুলিপিটি পাঠ করে যে মূল্যবান মন্তব্য করেছেন তা পাঠকগণের অনুধাবনের জন্য এই গ্রন্থের সঙ্গে সংযোজিত করা হল। এই সুযোগ ঘটায় গবেষণা বস্তুর গুরুত্ব...

১৪. সংযোজন : “রামায়ণের উৎস কৃষি” সম্বন্ধে মন্তব্য – শ্রী শ্রীজীব ন্যায়তীর্থ

১৪. সংযোজন : “রামায়ণের উৎস কৃষি” সম্বন্ধে মন্তব্য – শ্রী শ্রীজীব ন্যায়তীর্থ শ্ৰীযুক্ত জিতেন্দ্রনাথ বন্দোপাধ্যায় মহাশয় যে অসাধারণ পরিশ্রম করিয়া এই গ্রন্থ রচনা করিয়াছেন, তজ্জন্য তিনি বিশেষ ধন্যবাদার্হ। ‘বাল্মীকি-রামায়ণট সাধারণভাবে একটি ধর্মগ্রন্থ বলিয়াই...

১৩. কথা-অবশেষ

১৩. কথা-অবশেষ শুরুতে যে কথা বলেছি, গ্রন্থের শেষে আবার সেই কথাটি স্মরণ করি। একটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যসিদ্ধির কারণে বাল্মীকি ছদ্মনামের আড়ালে কোন সর্বশাস্ত্র বিশারদ এই মহাকাব্য রচনা করেছিলেন মনে করি। রাজনৈতিক অথবা সামাজিক কারণে কোন নৃপতির পরিত্যক্ত স্ত্রীর গর্ভজাত সন্তানের...

১২. সিদ্ধাশ্রমের অন্তরালে – দ্বাদশ প্রকরণ

১২. সিদ্ধাশ্রমের অন্তরালে – দ্বাদশ প্রকরণ রাম প্রমুখ চার ভাই সকল বিদ্যায় পারদর্শী হয়ে উঠলে দশরথ উপাধ্যায় ও বন্ধুগণের সঙ্গে পুত্রদের দারক্রিয়া বিষয়ে চিন্তা করছিলেন; এমন সময় অযোধ্যায় বিশ্বামিত্রর আগমন। দশরথকে সত্যপ্রতিজ্ঞা করিয়ে বিশ্বামিত্র তাঁর আগমনের...

১১. বায়স-মন্থরা-ত্রিশঙ্কু পরিচয় – একাদশ প্রকরণ

১১. বায়স-মন্থরা-ত্রিশঙ্কু পরিচয় – একাদশ প্রকরণ বনবাসকালে রাম ভ্রাতা ও স্ত্রীসহ কিছুকাল চিত্ৰকুট পৰ্বতে বাস করেছিলেন। এখানে বসবাসকালে একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা ঘটেছিল, যার বিবরণ অভিজ্ঞান হিসাবে রামকে জ্ঞাপন করানোর কারণে সীতা অশোকবনে বন্দিনী থাকাকালে হনুমানকে...

১০. জনক বংশ – দশম প্রকরণ

১০. জনক বংশ – দশম প্রকরণ কুশবংশে পেয়েছি প্রাকৃতিক নিয়মে উত্তত শস্যপ্রদায়ী তৃণ। শস্যবীজ হতে গাছ হয় এবং সেই গাছ হতে পুনরায় শস্য উৎপাদিত হয়, এই তথ্যও কৃষিবিদ্যার অন্তর্গত। জনকবংশে সেই তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। রামসীতার বিবাহ বাসরে সীরধ্বজ যে বংশ তালিকা পেশ করেন...

০৯. কুশ বংশ – নবম প্রকরণ

০৯. কুশ বংশ – নবম প্রকরণ যেহেতু ‘রামায়ণ’ কৃষিবিজ্ঞানভিত্তিক কাহিনী, এজন্য সৃষ্টির তথা উদ্ভিদের আবির্ভাবের বিস্তৃত বিবরণ দেওয়ার যেমন প্রয়োজন ছিল, তেমনি অবশ্যকর্তব্য হল প্রাকৃতিক পরিবেশে সহজাত ভাবে যে শস্যপ্রদায়ী উদ্ভিদজগতের আবির্ভাব ঘটেছিল তাকেও ব্যক্ত করা।...

০৮. ইক্ষ্বাকু বংশ – অষ্টম প্রকরণ

০৮. ইক্ষ্বাকু বংশ – অষ্টম প্রকরণ রামায়ণের মূল কাহিনীতে তিনটি বংশের প্রাধান্য,—ইক্ষ্বাকু বংশ, জনক বংশ এবং এই দুই বংশের সংযোগসাধনকারী কুশ বংশ। মেঘ-দেবতা রামের বংশ তালিকায় ব্রহ্ম তথা মহাশূন্য হতে প্রাণ তথা উদ্ভিদ জগতের আবির্ভাবের বিভিন্ন স্তরগুলি ব্যাখ্যাত...

০৭. কৃষিশ্ৰী সীতা – সপ্তম প্রকরণ

০৭. কৃষিশ্ৰী সীতা – সপ্তম প্রকরণ বাল্মীকি ‘পৌলস্ত বধ’ তথা ‘রামায়ণ’ রচনা শেষ করে বেদবিশারদ ও গন্ধৰ্বসংগীতাভিজ্ঞ লবকুশকে শিক্ষাদান কালে বলেছেন,— কাব্যং রামায়ণং কৃৎস্নং সীতায়াশ্চরিতং মহৎ। পৌলস্ত্যবধ ইত্যেবং চকার চরিতব্ৰত॥ ৭ (১.৪.৭) অর্থাৎ ‘পৌলস্ত বধ’ কাব্যে...

০৬. সম্পাতি রহস্য – ষষ্ঠ প্রকরণ

০৬. সম্পাতি রহস্য – ষষ্ঠ প্রকরণ রামের সহায়তায় বালীকে বধ করে সুগ্ৰীব কিষ্কিন্ধ্যার রাজা হওয়ার পর বর্ষা নামে। শ্রাবণ হতে চার মাস অর্থাৎ কার্তিক মাস পর্যন্ত বর্ষাকাল। বর্ষা অন্তে সীতা উদ্ধারে সুগ্ৰীবের কোন উদ্যোগ না দেখে রাম দূত হিসাবে লক্ষ্মণকে কিষ্কিন্ধ্যায়...
মোট 39 / 112345...102030...শেষ »