যাতে যায় শমন যন্ত্রণা

যাতে যায় শমন যন্ত্রণা। ভুল নারে মন, গুরুর শীতল চরণ ভুল না।। বেদ বৈদিকের ভোলে ভুলে গুরু ছেড়ে গৌর বলে মনের ভ্রম এ সকলে শেষে যাবে রে যাবে জানা।। চৈতন্য আজব সুরে থেকে নিকটে দেখায় দূরে গুরু রূপ আশ্রয় করে কর রূপের ঠিকানা।। অবোধ জীবের তরে নিজ রূপ সম্ভব না রে লালন বলে, তাইতে...

যারে ভাবলে পাপীর পাপ হরে

যারে ভাবলে পাপীর পাপ হরে, দিবানিশি ডাক মন তারে।। গুরুর নাম সুধা-সিন্ধু পান কর তাতে একবিন্দু সখা হবে দিনবন্ধু অন্য ক্ষুধা রবে না রে।। যে নাম প্রহ্লাদ হৃদয়ে করে অগ্নি-কুণ্ডে প্রবেশ করে কৃষ্ণ নরসিংহ রূপ ধারণ করে হিরণ্যকশিপুরে মারে।। বলছে লালন, মন রসনা ভাবলি না শেষের...

যে করিবে কালার চরণখানি আশা

যে করিবে কালার চরণখানি আশা তুমি জান নারে, তারও কি দুর্দশা ও সে ভক্ত বলিরাজা ছিল রাজ্যেশ্বর বামনরূপে প্রভু করে ছলনা।। কর্ণরাজা ভবে বড় ভক্ত ছিল অতিথ রূপে তার স্ববংশে নাশিল কর্ণ অনুরাগী না হইলে দুখী অতিথের মন করে সান্ত্বনা।। প্রহ্লাদ চরিত্র দেখ এহি পুথ্বিধামে কত দুঃখ তার...

যে জন উন্মত্ত হইয়াছে গুরুর প্রেমের ডুরিতে

যে জন উন্মত্ত হইয়াছে গুরুর প্রেমের ডুরিতে।। আল্লার হাতে কোরনখানি নিচে আগুন উপরে পানি তারই মধ্যে কাদের গণি বইসা ঐ নাম জপতেছে – প্রেম-ডুরিতে।। শুনেছি ত্রিবেণীর ঘাটে আজগুবি এক ফুল ফুইটাছে সেই ফুল আছে মায়ের কাছে ও ফুল রসিক ধইরাছে – প্রেম-ডুরিতে।। যে তারে করেছে...

যে জন গুরুর প্রেম জানে না

যে জন গুরুর প্রেম জানে না, তার সাথে নাই লেনাদেনা।। কুমারে তার কাটে মাটি ছেইনা করে পরিপাটি ... ... পুড়া দিলে হয় পাকা সোনা।। কানা চোরে চুরি করে ঘর থুইয়া সিঁদ দেয় পাগাড়ে মিছে কানা হাঁতড়ে মরে কানার ভাগ্যে ধন মিলে না।। কাঠুরিয়া মাণিক পাইল পিতল বলে ফেলে দিল তাই লালন বলে,...

যে জন শিষ্য হয়, গুরুর মনের খবর লয়

যে জন শিষ্য হয়, গুরুর মনের খবর লয়। এক হাতে যদি বাজতো তালি তবে দুই হাত কেন লাগায়।। গুরু-শিষ্য এমনি ধারা চাঁদের কোলে থাকে তারা খাঁচা বাঁশে ঘুণে জ্বরা গুরু না চিনলে ঘটে তাই।। গুরু লোভী শিষ্য কামী প্রেম করা তার সেচা পানি উলুখড়ে জ্বলছে অগ্নি জ্বলতে জ্বলতে নিভে যায়।।...

যে জন সাধকের মূল গোড়া

যে জন সাধকের মূল গোড়া। বে-তালিম বে-সুহৃদ সে তো ফিরছে সদায় বেদ ছাড়া।। গুপ্ত নূরে হয় তার সৃজন গুপ্তভাবে করছে রে ভ্রমণ আবার নূরেতে নূর নবী পয়দা সেই কথাটি দেশ জোড়া।। পীরের পীর দস্তগীর হয় মুরশিদের মুরশিদ বলা যায় চিনতে তারে যদি পায় সে পথের দাড়া।। কেউ বলে সে মূলধারের মূল...

যে জন হাওয়ার ঘরে ফাঁদ পেতেছে

যে জন হাওয়ার ঘরে ফাঁদ পেতেছে, ঘুচেছে তার মনের আঁধার, সে যে             দিন ছাড়া নিরিখ বেঁধেছে।। হাওয়ার দমে বেঁধে ভেলা অধর চাঁদ মোর করছে খেলা ঊর্ধে নালে সদা চলা             বহু সাধন-গুণে কেউ দেখেছে।। হাওয়া দ্বারে দম কুঠরি মাঝখানে অটল বিহারী শূন্য বিহার স্বর্ণ পুরী...

যে পথে এসেছ রে মন

যে পথে এসেছ রে মন              যেতে হবে সেই পথে।। মহামায়ায় ভুলে রলি আজকাল বলে দিন ফুরালি কর ঐ নাম কৃতাঞ্জলী              যদি সময় হয় তাতে।। সেই পথের নাম ত্রিপিনের ঘাট, বাঘে সর্পে ধরেছে বাট, রসিক জনা সেই ঘাটের ঠাট              মহা যাচ্ছে তার সাথে।। সেই পথেতে তিনটি মরা,...

যে পথে সাঁই চলে ফেরে

যে পথে সাঁই চলে ফেরে তার খবর কে করে।। সে পথে আছে সদায় বিষম কালনাগিনীর ভয় যদি কেউ আজগবি যায় অমনি উঠে ছোঁ মারে। পলকভরে বিষ ধেয়ে তার ওঠে ব্রহ্মারন্ধ্রে রে।। যে জানে উলট-মন্ত্র খাটায়ে সেই তন্ত্র গুরু-রূপ করে নজর বিষ ধরে সাধন করে। ও তার করণ-রীতি সাঁই দরদী দরশন দিবে তারে।।...

যে পরশ পরশে, সে পরশ চিনে লে না

যে পরশ পরশে, সে পরশ চিনে লে না। সামান্য পরশের গুণ লোহার কাছে গেল জানা।।             পরশমণি স্বরূপ গোঁসাই             সে পরশের তুলনা নাই             পরশীরে যে জন তাই                         ঘুচিবে কঠোর যন্ত্রণা।।             কুমীরেতে পরকে যেমন             ধরায় সে আপন...

যে প্রেমে শ্যাম গৌর হয়েছে

যে প্রেমে শ্যাম গৌর হয়েছে সামান্য তার মর্ম জানা কি সাধ্য আছে।। না জেনে সে প্রেমের অর্থ আন্দাজি প্রেম করছে কত মরণ-ফাঁসি নিচ্ছে সে তো পস্তাতে পাছে।। মারে মৎস্য না ছোঁয় পানি হাওয়া ধর বয় তরণী ওমনি জেনে প্রেম করনি রসিকের কাছে।। গোসাঁই অনুসন্ধি যারা এবে সে প্রেম জানতে তারা...

যেও না আন্দাজী পথে মন-রসনা

যেও না আন্দাজী পথে মন-রসনা। দবোচে বিপাকে প’লে প্রাণ বাঁচবে না।।             পথেরো পরিচয় করে             যাও না মনের সন্দ মেরে             লাভ-লোকসান বুঝের দ্বারে                         যায় গো জানা।             উজান ভেটান পথ দুটি             দেখ ধেয়ান করে খাঁটি,...

যেখানে সাঁইর বারামখানা

যেখানে সাঁইর বারামখানা শুনিলে প্রাণ চমকে উঠে           দেখে যেন বুজঙ্গনা।। যা ছুঁইলে প্রাণে মরি এ জগতে তাইতে তরি বুঝে তা বুঝতে নারি           কি করি তার নাই ঠিকানা।। আত্মতত্ত্ব যে জেনেছে দিব্যজ্ঞানী সে হয়েছে ক-বৃক্ষে সুফল পেয়েছে           আমার মনের ঘোল গেল না।। যে...

যেতে সাধ হয় রে কাশী কর্ম ফাঁসি

যেতে সাধ হয় রে কাশী কর্ম ফাঁসি                          বাধে গলায়। আমি আর কতদিন ঘুরব এমন                          নাগর-দোলায়।। হলে রে একি দশা সর্বনাশা                           মনের ভোলায়। ডুবল ডিঙ্গা নিশ্চয় বুঝি                          জন্ম-নালায়।। বিধাতা দেয় বাজি...