কে তোমায় এ বেশ-ভূষণে সাজাইল, বল শুনি।
জেন্দা দেহে মরন্দার বেশ বোরকা তাজ আর
ডোর-কোপিনী।।
জেন্দা-মরার পোশাক পরা
আপন সরছাদ আপনি সারা
ভব দেখে ডঙ্কারা
সদদ্ভাব করনি।।

মরণের আগে মরে
ছোঁবে না তামে
শুনেছি সাধুর দ্বারে
তাই বুঝি করেছ ধনি।।

সেজেছ সাজ ভালই তোর
মরে যদি ডুবতে পার
লালন বলে, যদি ফেরে
দুকূল হবে অপমানী।।

—————-
লালন-গীতিকা, পৃ. ১৪৮