সোনার হুঁকো

পাইকপাড়া রাজবাড়িতে কোনো এক সময় একজন ব্ৰাহ্মণ পণ্ডিতের মহতী সভার আয়োজন করা হয়। অতিথিদের জন্য এই সময় বহু সোনা ও রূপার হুঁকো বার করা হয়। মহাকবি মাইকেল মধুসূদনের জন্যও এলো একটা সুন্দর সোনার হুঁকো। সভা তখন বেশ জমে উঠছে। চেনা-অচেনা বিদগ্ধ ব্যক্তিবর্গের আনাগোনা সেই সভায়। মাইকেল সোনার হুঁকোতে সুখটান দিয়ে সভার পণ্ডিতদের উদ্দেশ্যে রসিকতা করে বললেন, ‘ঠাকুরমশাইরা, এ দাসের (অর্থাৎ মাইকেলের) হুঁকোটি মারবেন না। কারণ আমার জাত গেলে আর জাত পাবো না ।’

মাইকেলের কথা শুনে সভায় হাসির রোল উঠল।

Print Friendly, PDF & Email
%d bloggers like this: