চট্টগ্রামের এক লোক বৃষ্টির পানির মধ্যে ড্রেনে পড়ে মারা গেলেন। তিনি স্বর্গে গিয়ে দেখলেন বিশাল এক দেয়াল। সেই দেয়ালখানা ঘড়িতে পরিপূর্ণ। তা দেখে মৃত লোকটি স্বর্গের দূতকে জিজ্ঞাসা করলেন, এখানে এতগুলো ঘড়ি কেন?

স্বর্গের দূত: এগুলো হল মিথ্যা ঘড়ি। প্রত্যেক মানুষের জন্য একটি করে রাখা আছে। দুনিয়াতে থাকা অবস্থায় কেউ যদি একবার মিথ্যা কথা বলে তাহলে ঘড়ির কাঁটা একবার ঘুরবে, দুটি মিথ্যা কথা বললে দুইবার ঘুরবে। এভাবে যে যতবার মিথ্যা কথা বলবে তার ঘড়ির কাঁটা ততবার ঘুরবে।

মৃত ব্যক্তি: আচ্ছা, ওই ঘড়িটি কার?

স্বর্গের দূত: এটা মাদার তেরসার ঘড়ি। এটার কাঁটা একবারও ঘুরেনি,তার মানে তিনি জীবনে একটি মিথ্যাও বলেননি।

মৃত ব্যক্তি: আচ্ছা, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন আর সিডিএতে যেসব রাজনীতিবিদ আছেন তাদের ঘড়িগুলো কই?

স্বর্গের দূত: দেখুন, সাধারণত বাংলাদেশের রাজনীতিবিদদের ঘড়িগুলো আমাদের অফিসরুমে থাকে। ওগুলো আমরা টেবিল ফ্যান হিসেবে ব্যবহার করি। কিন্তু চট্রগ্রাম সিটি কর্পোরেশন আর সিডিএতে যেসব রাজনীতিবিদ আছেন তাদের ঘড়ির কাঁটাগুলো আমরা হেলিকপ্টার উড়ানোর কাজে ব্যবহার করি। ওগুলো এত জোরে ঘুরে যে অফিসিয়াল কোনো কাজে ব্যবহারের জো নেই।

(সোর্স–বিডিনিউজ২৪.কম)

Print Friendly, PDF & Email
%d bloggers like this: